Home » Internet » VPN কি ? এটি ব্যবহার করে কিভাবে গোপনীয়তা রক্ষ্যা করা যায়

VPN কি ? এটি ব্যবহার করে কিভাবে গোপনীয়তা রক্ষ্যা করা যায়

VPN

প্রায় প্রতিদিনই আমরা কোন না কোন খবর দেখতে পাই যেখানে আমরা দেখি কারোর email এড্রেস hack হয়েছে অথবা কারো facebook account hack হয়ে গেছে অথবা  কারোর ই-মেইল বা facebook account hack করে অন্য কেউ ব্যবহার করছে।  

যাচ্ছে প্রযুক্তির ব্যবহার ততোই বাড়ছে, এবং এই সমস্ত ঘটনা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের একটা অংশ হয়ে উঠছে। আজকাল computer সুরক্ষিত রাখা ঘরের দরজা বন্ধ করার থেকেও দরকারি হয়ে উঠেছে। 

 আধুনিক যুগের প্রযুক্তির ব্যাপারে জানার সঙ্গে সঙ্গে আমাদের এটাও জানতে হবে  এই সমস্ত online বিভ্রাট থেকে কিভাবে আমরা নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে পারি। 

ইকো থাকার জন্য আমরা অনেক কিছুই করতে পারি যেমন facebook যখন তাদের সিকিউরিটি সেটিংস update করে তখন সে গুলি যেন আমাদের accountএ update হয় সেটির দিকে নজর রাখা।

 আমাদের email account এর একটি সিকিওর পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা, এবং একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর সেই পাসওয়ার্ডটি পরিবর্তন করা ইত্যাদি।

কিন্তু এসবের থেকেও অনেক টাই সোজা উপায় হল একটি VPN ব্যবহার করা। 

প্রায়শই লোকে কিছু ব্লক website খোলার জন্য VPN ব্যবহার করে। এগুলি ছাড়াও অনেকে তাদের পরিচয় গোপন করার জন্য এটি ব্যবহার করে যাতে তাদের পরিচয় track না হয়। আজকের সময়ে, VPN হ’ল আপনার গোপনীয়তা বাঁচানোর এবং internet এ গোপনে যোগাযোগের একটি ভাল উপায়।

 VPN কি ? – What is VPN?

VPN এর full form হল “Virtual Private Network”। 

এটি একটি নেটওয়ার্কিং প্রযুক্তি যা আমাদের internet এ সুরক্ষিত এবং এনক্রিপ্ট করা সংযোগ তৈরি করতে দেয়।

VPN ব্যবহার করার সময় আমরা internet এ যা কিছু dataএক্সচেঞ্জ করি তা এনক্রিপ্ট করা পদ্ধতিতে করা হয় যাতে কোনও hacker  বা অন্য কেউ এটি track করতে না পারে।

এগুলি ছাড়াও লোকেরা তাদের আসল পরিচয় গোপন করার জন্য আরও VPN ব্যবহার করে যাতে কেউ যদি তাদের track করে তবে তারা কে তা তারা জানতে পারবে না।

এটি internet এ খুব গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বিনিময় করতে হওয়ায় এটি অনেক বড় সংস্থা এবং আইটি সেক্টর ব্যবহার করে। VPN ব্যবহার করে, তারা তাদের dataখুব সুরক্ষিত রাখতে পারে এবং বেনামে internet এ যেকোন কিছু সার্ফ করতে পারে।

অনেক ধরণের hackার এটি ডার্ক webে ব্যবহার করে যাতে কেউ তাদের ধরতে না পারে তবে প্রযুক্তিটি খুব উন্নত হয়ে উঠেছে এবং hackারকে ডার্ক webে অনেকাংশে track করা যেতে পারে।

VPN কি ভাবে কাজ করে – How VPN Works in bangla

VPN-এর প্রধান কাজ হ’ল inernet এর সঙ্গে আপনার লাইনটি সুরক্ষিত করা।  এবং আপনি যে সমস্ত কাজ internet এ করছেন সেগুলি রক্ষা করা । 

এটি যেভাবে কাজ করে তা খুব সহজ কারণ যে কোনও search engine মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্রাউজার থেকে যা কিছু সার্চ দেই না কেন, VPN সেটিকে encrypt করে ISPতে পাঠায়।

এমনকি সেই web server এও আমরা VPN এর মাধ্যমে সংযোগ তৈরি করি। এর মানে একই আইপি ঠিকানাটি সেই web server এ যাবে যা আমাদের VPN server।

একটি VPN হ’ল এক প্রকারের computer server যাতে কোনও VPN server তৈরির জন্য কোনও কিছু কনফিগার করা থাকে।আমরা যখন আমাদের ডিভাইসটিকে VPN-এর সাথে সংযুক্ত করি, তখন সেই ডিভাইসটি একটি স্থানীয় network এর মতো কাজ করে।

এই নেটওয়ার্ক টি ব্যবহার করে আপনি যদি কিছু searchকরেন তাহলে সেটি প্রথমে এনক্রিপ্ট হবে এবং তারপর আপনার ISP তে যাবে। তারপর আপনার ISP জানতে পারবে আপনি কোন websiteটি খুলতে চাইছেন। এভাবেই এই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে যে কোন লক করা website খোলা যেতে পারে।

এবং এর সাথে, VPN ব্যবহারের সর্বাধিক সুবিধা হ’ল internet এ কিছু website রয়েছে যা আমরা আমাদের দেশে access করতে পারি না, তবে VPN এর সহায়তায় সহজেই সেই website access করা যাবে।

প্রতিটি দেশেই কিছু না কিছু website বন্ধ করা থাকে। তবে VPN ব্যবহার করে সেই websiteগুলি অতি সহজেই খোলা যেতে পারে। তবে যে সমস্ত websiteগুলি নিষেধ খুলতে নিষেধ করা আছে সেগুলি না করাই  ভালো।

 কোন দেশ কিছু নির্দিষ্ট কারণে website গুলিকে বন্ধ করে থাকে। এগুলি access  করাকে সাইবারক্রাইম কার্যকলাপের মধ্যে ধরা যেতে পারে।

কিভাবে VPN ব্যবহার করবেন – How to use VPN in Bangla

VPN ব্যবহার করা খুব সহজ। প্রযুক্তিগত দক্ষতা না থাকলেও আপনি খুব সহজেই এটি ব্যবহার করতে পারেন। এখানে আমরা computer এবং মোবাইল উভয় ক্ষেত্রে VPN কীভাবে সেট করবেন তা জানব।

computerে কিভাবে VPN সেট আপ করবেন

আপনি যদি আপনার computerে VPN ব্যবহার করতে চান তবে এর জন্য আপনাকে অপেরা web ব্রাউজার ব্যবহার করতে হবে। কেবল এই softwareটি ডাউনলোড এবং ইনস্টল করতে হবে।

1. প্রথমে আপনাকে অপেরা ব্রাউজআর ডাউনলোড করতে হবে এবং ইনস্টল করতে হবে।

2. তারপরে আপনি এটি খুলুন এবং উপরের ডানদিকে আপনি একটি 3 লাইন মেনু দেখতে পাবেন, আপনাকে এটিতে ক্লিক করতে হবে।

৩. মেনু এর নীচে আপনি গোপনীয়তা এবং সুরক্ষা বিকল্প দেখতে পাবেন এবং এর মধ্যে আপনাকে VPN সক্ষম করতে হবে।

৪. এর পরে, VPN চালু করতে সক্ষম ইন সেটিং এ ক্লিক করুন।

৫. এটি চালু করার পরে, আপনি একটি VPN network এর সাথে সংযুক্ত হয়ে জাবেন।

কিছু VPN Software যা Computerএ ব্যবহার করা হয়

computer এর জন্য অনেক VPN software ই রয়েছে।  আপনি যদি আগে বলা অপেরা ব্যবহার করতে না চান তবে আপনি এই software গুলির মধ্যে যে কোন টি ব্যবহার করতে পারেন।

internet এ প্রচুর ফ্রি এবং পেইড VPN রয়েছে। তবে এদের বেশিরভাগ VPN ব্যবহার করা উচিত নয় কারণ তারা আপনার dataগুলিকে ভুলভাবে ব্যবহার করতে পারে। যদিও কোনও ভাল সংস্থা এটি করে না তবে আমাদের পক্ষ থেকে আমাদের সাবধান হওয়া উচিত।

নীচে কিছু VPN সংস্থার নাম দেওয়া আছে।

Hotspot Shield – Free

Speedify – Free

Totalvpn – Free 

Tunnel Bear – Free

Windscribe – Free

Nordvpn – Paid 

Nortan Secure vpn –  Paid 

Ultravpn –  Paid

মোবাইলে কিভাবে VPN ব্যবহার করবেন 

মোবাইলে, আপনি যে কোনও VPN অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে VPN ব্যবহার করতে পারেন। অ্যান্ড্রয়েড এর ক্ষেত্রে গুগল প্লেস্টোর থেকে VPN সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে পারেন। অ্যান্ড্রয়েডের জন্য কয়েকটি VPN নাম নীচে দেওয়া হয়েছে –

Secure VPN 

Turbo VPN 

Best VPN 

Thunder VPN 

VPN Master

VPN ব্যবহার এর সুবিধা – Advantages Of VPN in Bangla

  • আপনি যদি এমন কোন wifi-network ব্যবহার করেন যেখানে আপনি মনে করছেন যে সেটি আমার গোপনীয়তার ক্ষতি করতে পারে তবে আপনি VPN network এর ব্যবহার করে  আমার গোপনীয়ত রক্ষ্যা করতে পারেন।  
  • এমন অনেক পেশাদার লোক আছেন যারা চান না যে internet এ কেউ তাদের track করুক, তারা VPN ব্যবহার করে নিজেকে আড়ালও করতে পারে।
  • এর সাহায্যে কিছু জিও-ব্লকড websiteও খোলা যেতে পারে। 
  • VPN-এ অনেকগুলি এনক্রিপশন প্রোটোকল রয়েছে যা আপনার dataনিরাপদে সঠিক serverে স্থানান্তর করে।