Home » আপডেট কি এবং কিভাবে মোবাইলে সফটওয়্যার আপডেট দেওয়া উচিৎ

আপডেট কি এবং কিভাবে মোবাইলে সফটওয়্যার আপডেট দেওয়া উচিৎ

আপডেট কি

আপনি কি পার্ট ফোনের কথা বলছেন না কম্পিউটারের কথা?  যে ডিভাইসের কথাই বলুন না কেন, সিস্টেম আপডেট (system update) এর ব্যাপারটা সেই সমস্ত ডিভাইসের জন্য প্রযোজ্য।

যেখানে একটি অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল করা রয়েছে এবং যে সমস্ত ডিভাইস ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত রয়েছে ।

অধিকাংশ সময়ে যখন আমাদের ফোনে আপডেট করার জন্য নোটিফিকেশন আসে তখন আমরা বিরক্ত হয়ে সেটিকে বন্ধ করে দেই।  কিন্তু এটা কোন মতেই ঠিক নয়। 

 কোম্পানির পাঠানো এই সমস্ত আপডেটগুলি আপনার ফোনের performance improve করার জন্য যতটা জরুরী, ততটাই জরুরী আপনার ফোনের security up-to-date রক্ষার জন্য। 

আমরা যেমন কোন কাজ করতে গিয়ে যদি কোন ভুল করে ফেলি পরেরবার সেই কাজটি করার সময় সেই ভুলটি শুধরে নেই। 

তেমনি মোবাইল কোম্পানিগুলো তাদের রিলিজ করা সফটওয়্যার এবং বিভিন্ন সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও উন্নত করতে থাকে। 

যাতে সেই সফটওয়্যার ব্যবহারকারীরা তার থেকে অনেক বেশি উপকার পায়।  সুতরাং আপনি ধরে নিতে পারেন যদি আপনার ফোনে কোন একটি app install করা থাকে সেটিকে update করলে আগের থেকে অনেক ভালোভাবে সেটি কাজ করবে।

যাইহোক,  সফটওয়্যার আপডেটের ক্ষেত্রে এমন কিছু দিক রয়েছে যেগুলো আপনাকে আগে বুঝে নিতে হবে।  

এমন অনেক ইউজার রয়েছে যারা সিস্টেম আপডেট সম্পর্কে সম্পূর্ণ অবগত নন।  এবং যার ফলস্বরূপ তারা কখনোই তাদের ইলেকট্রনিক ডিভাইস এর সফটওয়্যার আপডেট করেন না। 

এবং অনেক ক্ষেত্রে তারা আপডেট নোটিফিকেশন (update notification) টিকে সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করে রাখেন।

অবশ্যই পড়ুন

আপডেট কি

আপডেট মূলত একটি ছোট কোড (code)  যেটা ডেভলপার তৈরি করেন তার অ্যাপটিকে আরো উন্নত করে তোলার জন্য। 

যেকোনো সফটওয়্যার তৈরি করার পর সেটিকে বিভিন্ন রকম ভাবে test করা হয়,  এবং অনেক ক্ষেত্রে টেস্ট করার পরেও সফটওয়্যার এর মধ্যে কিছু সমস্যা (bug) রয়ে যায়।  এই সমস্ত সমস্যাকে দূর করার জন্য ডেভলপার সফটওয়্যার আপডেট তৈরি করেন। 

অনেক সময় দেখা গেছে পরিস্থিতির পরিবর্তনের জন্য অনেক সফটওয়্যার ঠিক মতন কাজ করতে পারে না।  

যেমন উদাহরণস্বরূপ ধরা যাক যদি কোন ফোনের অ্যান্ড্রয়েড আপডেট করা হয় তাহলে তার মধ্যে থাকা অ্যাপ্লিকেশনগুলি কেউ আপডেট করার প্রয়োজন হয়। 

কারণ নতুন এন্ড্রয়েড এর মধ্যে যে সমস্ত নতুন feature add করা হয়েছে সেগুলিকে যেন সেই অ্যাপ্লিকেশনগুলি ঠিক ভাবে ব্যবহার করতে পারে। 

এই সমস্ত কারনের জন্য ডেভেলপাররা এই ধরনের ছোট বা বড় আপডেট রিলিস করেন  এবং সেগুলি সফটওয়্যারের মূল সার্ভারে আপডেট করেন।

এবং এরপর ওই সফটওয়্যার এর ব্যবহারকারীদের কাছে একটি আপডেট নোটিফিকেশন চলে যায় যাতে তারা সেগুলি ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে পারেন। 

আপনি সফটওয়্যার আপডেট করলে কি হয়

সহজভাবে বলতে গেলে সফ্টওয়্যার আপডেট করার ফলে, ব্যবহারকারীরা তাদের ডিভাইসে এর মধ্যে থাকা সফটওয়্যার গুলিকে আরো কিছুটা উন্নত করতে পারেন। 

এছাড়াও আরো অনেক বিষয় আছে, যেগুলো সম্পর্কে আমরা জানব।

ত্রুটি সংশোধন 

প্রায়শই দেখা যায় অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে অ্যাপ্লিকেশন গুলিতে ত্রুটি বা বাগ থেকে যায়। যার ফলে অ্যাপ্লিকেশনটি সঠিকভাবে চালাতে পারেনা। কিন্তু সফটওয়্যার আপডেট এই সব বিষয় ঠিক করে দেয়।

এই ধরনের বাগ সংশোধন করার জন্য সময়ে সময়ে সফটওয়্যার আপডেট প্রয়োজন।

নতুন Feature যোগ করা 

যদি কোন কোম্পানি তার ডিভাইস এ বা নতুন অপারেটিং সিস্টেমে কিছু নতুন Feature যোগ করে , তাহলে সফটওয়্যারটি আপডেট করলে অ্যাপ্লিকেশন গুলি সাই Feature গুলির জন্য উপযুক্ত হয়ে ওঠে। 

ফোন বা অ্যাপ্লিকেশনের performance উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়

অধিকাংশ সময় দেখা গেছে updates এর পর ফোন বা অ্যাপ্লিকেশনের performance উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পায়। ব্যবহারকারী দিক থেকে আরও উপযোগী হয়ে ওঠে। 

সফটওয়্যারের নিরাপত্তা আরও ভালো হয়

প্রায়ই hacker এবং cracker রা এই ধরনের দূষিত সফটওয়্যার তৈরি করে যা অনলাইন নিরাপত্তা নিয়ে একটি বড় প্রশ্ন তোলে। 

এই সফটওয়্যারগুলো এতটাই বিপজ্জনক যে ব্যবহারকারীরা জানতেও পারে না যে তারা কখন তাদের ডেটা চুরি হয়েছে । 

কিন্তু সফ্টওয়্যার আপডেট করার মাধ্যমে, আপনার ফোন বা অন্য কোন ডিভাইস অবিলম্বে এই ধরনের সফটওয়্যারের সাথে সুরক্ষিত হয়ে যায়। কারণ ডেভেলপাররা এমন সব খামতি বন্ধ করে দেয় যার মাধ্যমে হ্যাকাররা আপনার সফটওয়্যারের ক্ষতি করতে পারে,

অপারেটিং সিস্টেম আরো সামঞ্জস্যপূর্ণ ভাবে কাজ করতে পারে

যদিযদি সফটওয়্যারটি হার্ডওয়্যারের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ না হয়, তাহলে ব্যবহারকারীরা সমস্যার সম্মুখীন হতে পারে।

হার্ডওয়্যারে যেমন আপগ্রেড হচ্ছে , তেমনিভাবে যদি সফ্টওয়্যারটি এর পরিবর্তন না করা হয়, তবে অপারেটিং সিস্টেমে ত্রুটি দেখা দিতে পারে। অতএব, এই সমস্যা থেকে বাচার জন্য, সফ্টওয়্যার আপডেট করতে হবে।

কিভাবে আপডেট দেবেন

আপডেট আপডেট দেওয়ার আগে, একবার পরীক্ষা করে দেখুন। আপনার ফোন আপডেট প্রয়োজন আছে কিনা

  1. আপনার ফোনে সেটিংস অ্যাপ টি খুলুন।
  2. স্ক্রিনের নীচে,  সিস্টেমের > আরও সেটিংস >সিস্টেম আপডেট অপশন টি খুলুন।
  3. আপনার ডিভাইসের “অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ” এবং “নিরাপত্তা প্যাচ স্তর” পরীক্ষা করুন।

এর পর check for update -এ ক্লিক করুন, এখানে যদি নতুন আপডেট দেখা যায়, তাহলে ক্লিক করার সাথে সাথে ডাউনলোড শুরু হবে। এর জন্য, আপনার ওয়াই-ফাই বা মোবাইল ডেটা অন রাখতে হবে। এর সাইজ খুব বেশি হতে পারে, তাই শুধুমাত্র ভালো গতির সম্পন্ন ইন্টারনেট ব্যবহার করুন।

এই আপডেটটি একটি সাধারণ সফ্টওয়্যার আপডেটও হতে পারে অথবা এটি একটি অ্যান্ড্রয়েড আপডেটও হতে পারে। 

ডাউনলোড শেষ হওয়ার পর, Install Update– এ ক্লিক করুন এবং আপনার মোবাইল আপডেট হতে শুরু করবে। 

এই সময়, আপনার ফোন অনেকবার রিস্টার্ট হবে, তাই আতঙ্কিত হওয়ার কোন কারন নেই, মাঝখানে কিছু করবেন না, আপডেট সম্পূর্ণ হতে দিন। 

আপডেটটি সম্পূর্ণ হতে কিছুটা সময় লাগতে পারে। কিছু সময়ের মধ্যে আপনার ফোন আপডেট হবে এবং স্ক্রিনে দেখা যাবে আপনার মোবাইল সর্বশেষ সংস্করণে আপডেট হয়েছে।

আপডেট দেওয়ার আগে

আপনার মোবাইল বা সিস্টেম আপডেট করার আগে আপনার কিছু বিষয়ের বিশেষ খেয়াল রাখা উচিত, যাতে কোন অসুবিধা ছাড়াই সফটওয়্যার আপডেট হয়।

ব্যাটারি চার্জ চেক করুন

আপডেট এর আগে দেখে নেওয়া উচিৎ ব্যাটারি তে  চার্জ 75% এর বেশি আছে কিনা । 

যদি তা না থাকে তাহলে আপডেট হওয়ার সময় ফোন বন্ধ হয়ে যেতে পারে এবং এর ফলে ভবিষ্যতে ফোন টি স্টার্ট না ও হতে পারে। 

অতএব আপডেট এর সময় ব্যাটারির চার্জ 75% এর বেশি থাকা উচিত।

ইন্টারনেট ঠিক মত কাজ করছে কিনা বা মোবাইল এ পর্যাপ্ত পরিমান ডেটা আছে কিনা

আপডেট করার জন্য, আমাদের ইন্টারনেটের প্রয়োজন এবং এতে প্রচুর ডেটাও খরচ হতে পারে। 

এমন পরিস্থিতিতে যদি আপনার ওয়াইফাই সুবিধা থাকে, তাহলে অবশ্যই সেটি ব্যবহার করুন। 

কিন্তু যদি এটি না থাকে, তাহলে আপনি মোবাইল ডেটা ব্যবহার করতে পারেন, কিন্তু আপনার আপডেট না হওয়া পর্যন্ত এতে পর্যাপ্ত ডেটা থাকবে কিনা তা পরীক্ষা করে দেখুন । 

অন্যথায় আপডেট করার সময় আপনি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন।

ফোনের ডকুমেন্ট এর ব্যাকআপ নিন

অনেক সময় দেখা গেছে যে সফটওয়্যার আপডেট করার সময় ফোনের মধ্যে থাকা ডকুমেন্ট নষ্ট হয়ে যায়, তাই আপডেট করার আগে আপনার সমস্ত ডকুমেন্ট যেমন ফটো, ভিডিও ইত্যাদি র ব্যাকআপ নিয়ে রাখুন । 

আশা করি সফটওয়্যার আপডেট করলে কি হয় সে সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য পায়েছেন এবং আমি আশা করি আপনি কিভাবে সফটওয়্যার আপডেট করবেন তা বুঝতে পেরেছেন।