Home » কাগজ কোথায় আবিষ্কার হয়েছিল?

কাগজ কোথায় আবিষ্কার হয়েছিল?

কাগজ কোথায় আবিষ্কার হয়েছিল?

যদিও বর্তমানে অধিকাংশ কাজ ডিজিটাল টেকনোলজির ওপর নির্ভর করেই হচ্ছে, অফিস আদালত থেকে শুরু করে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থাগুলো কাগজের ব্যবহার এড়িয়ে চলার চেষ্টা করছে।  কিন্তু তা সত্বেও  আজও অনেক গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় কাগজের এর প্রয়োজন রয়েছে।

পৃথিবী যতই আধুনিক হোক না কেন, কাগজের প্রয়োজনীয়তাকে সম্পূর্ণ রুপে উপেক্ষা করা অসম্ভব। প্রাত্যহিক জীবনে আমাদের এমন অনেক কাজ রয়েছে যা কাগজ ছাড়া করা প্রায় অসম্ভব।  কাগজ ছাড়া আজ আমাদের অধিকাংশ কাজই অসম্পূর্ণ।

এমন লোক খুব কম রয়েছে যিনি কাগজ ব্যবহার করেননি। আজ, মুদ্রা অর্থাৎ টাকা থেকে শুরু করে শিশুদের পড়াশোনা এবং সংবাদপত্র পর্যন্ত, কাগজ সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়। 

ছেলেমেয়েদের লেখাপড়া, ব্যাংক বা ব্যবসায় কাগজের প্রয়োজন সবাই জানে। 

কিন্তু আপনি কি জানেন কে এবং কখন এই কাগজ এর আবিষ্কার করেন? যদি না জানেন তবে আজকের পোস্টে টিতে বিস্তারিত জানতে পারবেন । 

কাগজ কে এবং কবে আবিষ্কার করেন

কাগজের আবিষ্কার প্রথম কোন দেশে হয় । চীনে যখন রাজবংশিও শাসন ব্যবস্থা প্রচলিত ছিল তখন সেখানে কাগজের আবিষ্কার হয় । কাই লুন (Cai Lun) নামে এক ব্যক্তি কাগজ আবিষ্কার করেন ।

জানা যায় কাই লুন 202 খ্রিস্টপূর্বাব্দে চিন দেশে বাস করতেন। এবং (105 খ্রিস্টপূর্বাব্দে) হান রাজবংশের শাসন কালে তিনি কাগজ আবিস্কার করেন । কাই লুনের এই আবিস্কার এর আগে , বাঁশ বা সিল্কের টুকরোর লেখার জন্য ব্যবহৃত হত, কিন্তু সিল্ক অতান্ত ব্যয়বহুল হওয়ায় কারনে এটি ব্যবহার করা কিছুটা কঠিন হয়ে উঠছিল।

অপর দিকে বাঁশ একটু সস্তা হলেও তা বেশ ভারী ছিল। তাই এই সমস্ত জিনিষের এর ব্যবহারও কমতে শুরু করে , এবং সস্তা ও সহজে ব্যবহার যোগ্য লেখার জিনিসের প্রয়োজনীয়তা অনুভূত হয়।

 এই কারনে কাই লুন কাগজ আবিস্কার করেন, সে সময় কাই লুন শণ, তুঁত, গাছের ছাল এবং অন্যান্য ধরনের তন্তুর সাহায্যে কাগজ তৈরি করেন।

কাই লুনের তৈরি কাগজটি ছিল চকচকে, নরম, নমনীয় এবং মসৃণ। সস্তা এবং সহজে লেখার কারণে এটি ধীরে ধীরে সারা বিশ্বে ব্যবহৃত হতে শুরু করে। 

চীনের পর প্রথম কোথায় কাগজ ব্যবহার করা হয়? 

ইতিহাসবিদদের মতে, চীনের পর ভারতে কাগজ তৈরি ও এর ব্যবহারের প্রমাণ পাওয়া গেছে। সিন্ধু সভ্যতার সময় ভারতে কাগজ তৈরি ও ব্যবহারের অনেক প্রমাণ পাওয়া গেছে। যা প্রমাণ করে চীনের পর ভারতে কাগজ তৈরি ও ব্যবহার করা হয়।

কাগজ তৈরির এই শিল্পটি জাপান (610 খ্রি.) এবং তারপর সমরকন্দ (751 খ্রি.), বাগদাদ (793), দামেস্ক, মিশর এবং মরক্কো ইত্যাদি দেশ হয়ে মুরদের সাথে ইউরোপে পৌঁছেছিল। ইউরোপে প্রথম কাগজটি 1150 সালে স্পেনে উত্পাদিত হয়েছিল। এরপর যথাক্রমে ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, ইংল্যান্ড, পোল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, রাশিয়া, ডেনমার্ক ও নরওয়েতে কাগজ উৎপাদনের কথা সোনা যায়।

এরপর বিশ্বের অনেক দেশই কাগজের ব্যবহার শুরু করে।

তাহলে এখন আপনি নিশ্চয়ই জানতে পেড়েছেন কে কাগজ আবিষ্কার করেছেন এবং কোন সময়ে , চীনের বাসিন্দা কাই লুনের তৈরি কাগজটি আগে একটু মোটা ছিল। কিন্তু সময়ের সাথে সাথে কাগজেও পরিবর্তন এসেছে। বর্তমান সময়ে মানুষ চুলের চেয়েও কম ঘন কাগজ তৈরি করেছে। আজ কাগজ এমন একটি জিনিস হয়ে দাঁড়িয়েছে যে বিশ্বের সব দেশই এটি ব্যবহার করছে।